ভোলায় মিয়া মোহাম্মদ ইউনুছ এর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে দোয়া ও মুনাজাত অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৮:২৫ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৭, ২০২১

সিমা বেগম, ভোলা।।

বিশিষ্ট সমাজসেবক মিয়া মোহাম্মদ ইউনুছ এর বিরুদ্ধে ইসলামী ফাউন্ডেশন কর্তৃক দায়ের করা ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলা থেকে তার নাম প্রত্যহারের দাবীতে ভোলার আলেম-ওলামাদের আলোচনা সভা ও দোয়া মুনাজাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (৬ জানুয়ারী) দুপুরে ইমাম পরিষদ ভোলা উপজেলা এর আয়োজনে খলিফাপট্টি জামে মসজিদে এই সভা ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভা ও দোয়া মুনাজাত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, ঈমান আক্বিদা সংরক্ষণ কমিটির ভোলা জেলা সেক্রেটারী তাজউদ্দিন ফারুকী, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান মমতাজী, জেলা জমিয়তুল মোদারেসীনের সম্পাদক ও ভোলা আলিয়া মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মাওলানা মোবাশ্বেরুল হক নাঈম প্রমুখ। সমাপনী বক্তব্য রাখেন, খলিফাপট্টি ফেরদাউস জামে মসজিদের খতিব অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ মুজিরউদ্দিন। দোয়া মুনাজাত পরিচালনা করেন, ঈদগাহ মসজিদের ঈমাম মোহাম্মদ উল্লাহ তাহেরী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, প্রবীন রাজনীতিবিদ আমিনুল ইসলাম খান, স্বাস্থ্য বিভাগের সাবেক উপপরিচালক ডাঃ আবদুল মালেক, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজসেবী হারুন অর রশিদ, দৈনিক আজকের ভোলার সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ শওকাত হোসেন, বিশিষ্ট ঠিকাদার আবদুল কাদের খোকন গোলদার, প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ আবু তাহের, বেফাকের জেলা সভাপতি মাওলানা মহিউদ্দিন, ভোলা আলিয়া মাদ্রাসার প্রধান মোহাদ্দেস মাওলানা ফয়েজ উল্লাহ, আজিজিয়া মাদ্রাসার মোহতামীম মাওলানা তৈয়বুর রহমান, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন ভোলা উত্তরের সাধারণ সম্পাদক ও তানজীমুল কুরআন মাদ্রাসার মোহতামীম মাওলানা তরিকুল ইসলাম, দারুল কোরআন ঈদগাহ মাদ্রাসার পরিচালক মাওলানা গোলাম মোর্শেদ প্রমুখ। দোয়া অনুষ্ঠানে বিভিন্ন মসজিদের খতিব, ঈমাম, মোয়াজ্জিন ও খাদেমগণ উপস্থিত ছিলেন। এসময় দরুদে নারিয়া, খতম, জেকের ও দোয়া অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

দোয়া অনুষ্ঠানে বক্তারা সারা জীবন সামাজিক কর্মকান্ড করে নিজের জীবনকে উৎসর্গ করা মানুষ আলহাজ্ব মিয়া মোহাম্মদ ইউনুসকে এই মিথ্যা মামলা থেকে নিঃশ্বর্ত প্রত্যাহারের দাবী জানান। এসময় তারা বলেন, বিশিষ্ট সমাজসেবী মিয়া মোহাম্মদ ইউনুসের কাজের সফলতা ভোলার প্রতিটি মানুষ ভালো করে জানে। বন্ধুজনের প্রধান সম্পাদক হিসেবে মিয়া মোহাম্মদ ইউনুস অনেক জনকল্যাণমূলক ও সেবা কার্যক্রমের নেতৃত্ব দিয়েছেন। এ ধরনের একটি সামাজিক সংস্কারমূলক কাজে নেতৃত্ব দিয়ে যদি কাউকে হেনস্থা হতে হয়, শেষ জীবনে এসে এ ধরনের মামলার মুখোমুখি হয়ে আশঙ্কাজনক জীবন-যাপন করতে হয় তার চেয়ে দুঃখজনক আর কিছু হতে পারে না। তাই ভোলার সকল মানুষের এবং দেশের সকল বিবেকবান ও সচেতন মানুষের পক্ষ থেকে সরকারসহ সংশ্লিষ্ট মহলের কাছে একটাই দাবি এই কঠিন ও বাজে ধরনের মামলা থেকে নিবেদিতপ্রাণ সমাজকর্মী আলহাজ্ব মিয়া মুহাম্মদ ইউনূসকে বাদ দেয়া হোক।

উল্লেখ্য, ইসলামী ফাউন্ডেশন কর্তৃক দায়ের মামলার আসামিদের মধ্যে রয়েছেন, আজীবন কারাদ-প্রাপ্ত মুফাসসিরে কুরআন মাওলানা দেলোয়ার হোসেন এমপি, একসময়ের বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে ইসলামী প্রোগ্রামের উপস্থাপক ও আলোচক মৌলানা আবুল কালাম আজাদ ও সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর মরহুম মোশারফ হোসেন শাজাহান প্রমূখ। গত ২৮ ডিসেম্বরে এ মামলার তারিখ ছিল, পিছিয়ে আগামী ১১ জানুয়ারি পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।