বোরহানউদ্দিন মেঘনায় ফারহান ৪ লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলার ডুবি” নিখোঁজ ৫ জেলে জিবিত উদ্ধার

প্রকাশিত: ২:১৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০

বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধিঃ ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার হাকিমুদ্দিন লঞ্চঘাট এলাকায় মেঘনা নদীতে ঢাকা থেকে হাতিয়া গামী এমভি ফারহান ৪ লঞ্চের ধাক্কায় ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে।

এসময় ৫ জেলে নিখোঁজ হয়। তাদেরকে জিবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তারা প্রাথমিক চিকিৎসা নেয়। এসময় ভেঙ্গে যায় ইঞ্জিল চালিত ট্রলারটি ।

রবিবার রাত আনুমানিক ২ টা ৩০ মিনিটের সময় এ ঘটনা ঘটে।

এঘটনায় ট্রলার মালিক কামাল জমাদার হাকিমুদ্দিন নৌ পুলিশ ফাঁড়িতে মৌখিক ভাবে অভিযোগ করেন।

ট্রলার মালিক কামাল জানান, মাছ ধরার জন্য মেঘনা নদীতে ট্রলার টি জাল ফেলে রাখেন। কিছুক্ষন পরে ফারহান ৪ লঞ্চটি এসে আমাদের ট্রলারটির উপর উঠিয়ে দেয়। এসময় মাঝি সোহেল, জেলে ফরহাদ, আরিফ, আজাদ ও আলাউদ্দিন নিখোঁজ হয়। পরে তাদেরকে ভাসমান অবস্থায় জিবিত উদ্ধার করি। তারা আহত হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা নেয় । ট্রলারটি পুরো ভেঙ্গে যায়। এতে আমার ২ লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়। ঘটনার কিছুক্ষন পরে হাকিমুদ্দিন নৌ পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে জানিয়েছি।

এমভি ফারহান ৪ লঞ্চের সুপারভাইজার জহিরুল ইসলাম জানান, আমাদের লঞ্চের পিছনে আরো ৩ টি লঞ্চ ছিল। আমরা বিষয়টি জানিনা। হয়তবা অন্যলঞ্চে ট্রলারটি মেরে দিয়েছে। তবে টলারটি ভেঙ্গেছে ঘাটের যাত্রীদের মুখে শুনেছি ।

হাকিমুদ্দিন নৌ পুলিশ ফাঁড়ির আইসি রুহুল আমিন জানান, ট্রলার ডুবির ঘটনার সাথে সাথে ট্রলার মালিক কামাল সহ স্থানীয় জেলেরা আমাকে জানিয়েছে। আমি ঘটনা পরিদর্শন করেছি। ট্রলারটি ভেঙ্গে যায়। আমরা আমাদের উদ্বতন কতৃপক্ষকে ঘটনাটি লিখিত ভাবে জানিয়েছি।

হাকিমুদ্দিন লঞ্চ ঘাট ইজারাদার উজ্জল হাওলাদার জানান, ঘটনার সাথে সাথে ট্রলার মালিক কামাল আমাকে রাত ৩ টায় ফারহান ৪ লঞ্চের কথা বলেছে। আমি ঘটনাটি শুনেছি, ফারহান লঞ্চ মালিক পক্ষকে জানিয়েছি।

এ ঘটনায় ট্রলার মালিক কামাল বাদী হয়ে বোরহানউদ্দিন থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

বোরহানউদ্দিন থানার ওসি মাজহারুল আমিন বিপিএম জানান, থানায় অভিযোগে পেয়েছি, তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।