মনপুরায় উপজেলা শিশু বিবাহ নিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত॥

প্রকাশিত: ৭:৪৯ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৭, ২০২০

মনপুরা প্রতিনিধি॥
শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের সুরক্ষা ত্বরান্বিতকরন’র লক্ষ্যে উপজেলা শিশু বিবাহ নিরোধ কমিটির মাসিক সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার (৭ই ডিসেম্বর) সকাল ১০ টায় সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে মনপুরা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং ইউনিসেফ সহযোগীতায়, বে-সরকারী উন্নয়ন সংস্থা কোস্ট ট্রাস্ট এর আয়োজনে সভায় উপজেলা শিশু বিবাহ নিরোধ কমিটির সদস্যগন উপস্থিত ছিলেন।
সভায় বক্তারা বলেন শিশু বিবাহ একটি সামাজিক ও আইনগত অপরাদ। শিশু বিয়ের ফলে মেয়ে শিশুর জন্য অধিকার লঙ্ঘন হয়। প্রত্যেক কিশোর-কিশোরীর শারীরিক ও মানসিক পরিপূর্নতা লাভের জন্য একটি নির্দিষ্ট সময় প্রয়োজন। কিন্তু অভিভাবকরা বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে সচেতন না থাকায় কন্যা শিশুদের অল্প বয়সে বিয়ে দিচ্ছে। ফলে মেয়েরা অল্প বয়সে বিয়ে হয়ে স্কুল থেকে ঝড়ে পরে। তাই শিশুদের সুরক্ষার জন্য মেয়েদের ১৮ বছর ও ছেলেদের ২১ বছরের আগে বিয়ে নয়। কিশোরীদের ভালোর জন্য তাদের বাল্য বিবাহ বন্ধ করতে কিশোরীদের গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা পালন করতে হবে বলে জানান। প্রয়োজনে শিশু হেল্পলাইন নম্বর এর সাহায্য নিতে বলেন।
বক্তারা আরো বলেন, শিশু বিবাহ বন্ধ করতে আইন-সৃংখলা বাহিনীকে আরো কঠোর হতে হবে এবং অভিভাবক, কিশোর-কিশোরী, শিক্ষক ও এলাকার গন্যমান্য গনকে এগিয়ে আসতে হবে। বিশেষ করে কিশোর-কিশোরী ক্লাবের সদস্যরা মিলে শিশু বিয়ের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। আর এতে করেই শিশু বিবাহের হার কমিয়ে আনা সম্ভব বলে তারা মনে করেন।
সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন হাজির হাট ইউনিয়নের নারী ইউপি সদস্যা মফিজা বেগম, সুফিয়া বেগম, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয় এপিসি প্রকল্পের চাইল্ড রাইটস ফ্যাসিলিটেটর, জাহিদুল ইসলাম ও আজাদ হোসেন, কোস্ট ট্রাস্ট এপিসি প্রকল্পের প্রজেক্ট অফিসার মোঃ আরিফ হোসেন, সিবিসিপিসি কমিটির সদস্যগন, ইউনিয়নের বিভিন্ন কিশোর-কিশোরী ক্লাবের পেয়ার লিডারসহ প্রমুখ।
উল্লেখ্য যে, কোস্ট ট্রাস্ট মনপুরাসহ ভোলা জেলার ভোলা সদর, লালমোহন এবং চরফ্যাশনে এপিসি প্রকল্পের মাধ্যমে কিশোর-কিশোরী ক্লাবের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। যার সহযোগিতায় আছে বাংলাদেশ সরকারের মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং ইউনিসেফ।