রাজশাহীর মানবিক জনপ্রতিনিধি কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন

প্রকাশিত: ১:৫০ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১০, ২০২০

লিয়াকত রাজশাহী ব্যুরো:

রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সুমন নিঃস্বার্থ সমাজ হিতৌষী এক মানবিক জনপ্রতিনিধি।

চরম বৈশ্বিক সমস্যা কোভিট-১৯ বা মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদূর্ভাবের সময় ও স্থানীয় সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে সচেতনতাসহ সার্বিক সহায়তার জন্য রাত-দিন নিরন্তর ছুটে চলাসহ এলাকাবাসীর পাশে ছিলেন এ পরিশ্রমী মানবিক কাউন্সিলর। সরকারী ত্রাণ কিংবা বেসরকারী সাহায্য-সহায়তা বিতরণের ক্ষেত্রে যার বিরুদ্ধে আজও কোন অভিযোগ উঠেনি, আত্মসাতের কালিমা লেপন হয়নি তার স্বেচ্ছাসেবীমনা নামের সাথে।
নিজেই ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় ঘোরা ফেরা করেন। উদ্দ্যেশ হলো এলাকার হাল-চাল নিজ চোখে দেখা। তাই সকাল সকাল মানুষের দ্বারে দ্বারে হাজির হন তিনি। তিনি এক মানবিক সফল কাউন্সিলর মোঃ তৌহিদুল হক সুমন।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, তিনি ওয়ার্ডবাসীর বিভিন্ন সমস্যা ও চাওয়া-পাওয়ার কথা শোনেন বাড়ি বাড়ি গিয়ে। সম্বভ হলে সেখানেই সমাধান করে দেন।

এ ছাড়াও তিনি এলাকার অসুস্থদের খোঁজ খবর রাখেন প্রতিনিয়ত। এলাকার অসুস্থদের নিজ বাড়িতে উপস্থিত হয়ে চিকিৎসা ও শারীরিক খোঁজ খবর নেন ও সাহায্য করেন।
এলাকার উন্নয়নের জন্য সকলের সমর্থন ও পাশে থাকা প্রয়োজন। অতি শিঘ্রই সকল উন্নয়ন কাজ শুরু হবে। ইতোমধ্যে ৯ কোটি টাকার রাস্তা ও ড্রেনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে।

১ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ব্যায়ে উন্নয়ন কাজ চলমান রয়েছে। ৯ কোটি প্রাক্কলনে গত ৩০ আগস্ট টেন্ডার সম্পন্ন হয়েছে।প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ছোটবনগ্রাম বাররাস্তা নতুন বাইপাস সড়ক থেকে পশ্চিমে গাঙ পর্যন্ত ড্রেন নির্মাণ সিটি মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন’র নির্দেশে অতি দ্রুত টেন্ডার আহব্বান হচ্ছে। এসকল উন্নয়ন সকলের কাছে দৃশ্যমান হবে বলে কাউন্সিলর অবগত করেন।

ইতিমধ্যে প্রায় ১০ কোটি টাকা ব্যায়ে রাস্তা ও ড্রেনের উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করেছি, ১ কোটি ৪৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে উন্নয়ন কাজ চলমান, ৯ কোটি টাকা ব্যয়ে বিভিন্ন রাস্তা ও ড্রেনের নির্মান। কাজ প্রক্রিয়াগত, ২ কোটি ৯৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে টারশিয়ারি ড্রেন নির্মান প্রাক্কলন চুরান্ত করা হয়েছে। এছাড়া সকল রাস্তা ও ড্রেনের নির্মান নির্দিষ্ট সময়েই হবে বলে কাউন্সিলর উপস্থিত সবাইকে অবগত করেন। এছাড়া কাউন্সিলর সুমন আরো জানান, যে বিদ্যুৎ পোল স্থাপন চলমান, পানির পাইপ লাইনের কাজ চলছে, সরকারি সকল ভাতা অধিক সংখ্যক হারে প্রদান করা হচ্ছে। সুমনের সকল উদ্যোগে উপস্থিত জনগন আশ্বস্ত হয়ে তার পাশে থাকার অঙ্গীকার করেন।
ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত করতে মাদক বিরোধী সচেতনতা মূলক সভা করেন এবং তিনি বলেন, আমাদের সবাইকে সচেতন হতে হবে, নিজেদেরকে উদ্যোগ গ্রহন করে মাদক ব্যবসায়ীদের আইনের আওতায় আনতে হবে।