রাজাপুরে ফ্রান্স বিরোধী বিক্ষোভ মিছিল করলো জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ

প্রকাশিত: ৯:৫৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩০, ২০২০

সাইদুল ইসলাম, রাজাপুরঃ ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা শহরের প্রাণকেন্দ্র বাইপাস মোড় চত্তরে শুক্রবার (৩০শে অক্টোবর) বিকেল ০৩ ঘটিকায় ফ্রান্সে রাসূল (সঃ) কে উদ্দেশ্য করে ব্যাঙ্গ চিত্র প্রদর্শণ এবং ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁর ইসলামের বিরুদ্ধে করা সাম্প্রতিক মন্তব্যের প্রতিবাদে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ রাজাপুর উপজেলা শাখা’র উদ্যগে ফ্রান্সে বিশ্বনবী (সঃ) এর ব্যঙ্গ চিত্র প্রদর্শনের প্রতিবাদে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ রাজাপুর উপজেলার সভাপতি মুফতি আছাদুজ্জামন এর সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক মাওলানা রফিকুল ইসলাম আকন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ রাজাপুর উপজেলা সিনিয়র সহ সভাপতি কারী মুহাঃ বেলায়েত হোসেন, সহ সভাপতি কারী তাওহীদুল ইসলাম,মাওলানা আল আমিন দোহারী, মাওলানা হেদয়তুল্লাহ্ ফয়জীসহ রাজাপুর উপজলার সকল শীর্ষ ওলামা মাশায়েখগন।
বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তারা ফ্রান্সে মহানবী (সঃ) এর ব্যাঙ্গচিত্র প্রদর্শনের তীব্র নিন্দা প্রকাশ করে অবিলম্বে ফ্রান্স সরকারকে প্রকাশ্যে মুসলমাদের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহবান করেন। বক্তারা আরো বলেন বাংলাদেশের জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাবনার মাধ্যমে ফ্রান্সের ধৃষ্টতার জন্য ক্ষমা চাওয়া ও রাষ্ট্রীয়ভাবে ফ্রান্সের সকল পন্য বয়কট করার আহ্বান করেন।
প্রতিবাদ সমাবেশে স্থানীয় ওলামায়ে কেরামগনের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা হেদয়তুল্লাহ্ ফয়জী, মাওলানা মুফতি গিয়াস, মুফতি মোস্তফা বিন কবির, হাফেজ মাইনুল ইসলাম, কারী ইব্রাহীম আল হাদী, মাওলানা আলী আকবর সাইফী, মাওলানা জয়নাল আবেদীন মাওলানা মিজানুর রহমান, হাফেজ মাওলানা বায়জিদ হোসেন, কারী মুহাঃ ইব্রাহীম খলিল, মাওলানা আল আমিন, হাফেজ মুহাঃ আরিফ বিল্লাহ্ প্রমুখ।
বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা ফ্রান্সের সকল পণ্য বয়কটের আহবান করেন এবং মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করায় ফ্রান্স সরকারের প্রতি তীব্র নিন্দা জানান এবং অবিলম্বে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। এছাড়া ফ্রান্সের পণ্য বয়কটের সরকারি ঘোষণা দাবি করেছে তারা৷ এছাড়াও বক্তারা বাংলাদেশ সরকারকে সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপনের জন্য দাবি জানান। মুসলমানদের পক্ষে অবস্থান নিতে ব্যর্থ হলে দেশবাসী সরকার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিবে বলে তারা জানান।
সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশ শেষে কয়েক হাজার ধর্মপ্রাণ মানুষের প্রতিবাদ মিছিল বাইপাস মোড় থেকে বের হয়ে উপজেলা শহরের প্রাধান প্রাধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বাইপাস এসে বিক্ষোভ মিছিলের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়। শহরের সাধারণ মুসল্লি ও বিভিন্ন মসজিদ-মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ এ বিক্ষোভে অংশ নেয়। এসময় ফ্রান্সের পতাকা ও প্রেসিডেন্টের কুশপুত্তলিকা দাহ করে বিক্ষুব্ধরা।