নবীনগরে মাছ ব্যবসায়ী হানিফ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামি গ্রেপ্তার।

প্রকাশিত: ১১:২৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০২০

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের নূরজাহাপুর গ্রামে নৃশংসভাবে খুন হওয়া বহুল আলোচিত মাছ ব্যবসায়ী হানিফ মিয়া (৩৬) হত্যাকাণ্ডের ঘটনার এক সপ্তাহ পর মামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আসামীরা হলেন- মামলার ৫ নম্বর আসামি সুমন মিয়া (মামলার ১ নম্বর আসামি মনেক মিয়ার ছেলে) ও ৬ নম্বর আসামি মৃত মানিক মিয়ার ছেলে টিপু মিয়া।

গতকাল রাতে জেলার আখাউড়া থেকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা (আইও) সলিমগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. মামুনুর রশীদ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে এদেরকে গ্রেপ্তার করেন। আজ দুপুরে গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে চালান করা হয়েছে।
এ বিষয়ে মামলার বাদী শিল্পী আক্তার বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলেই মামলার প্রধান আসামির হদিস পাওয়া সহ বর্বরোচিত খুনের ঘটনার মূল রহস্য বের হয়ে যাবে। তাই ধৃতদের রিমান্ডে আনার দাবি করছি।

এ বিষয়ে এসআই মামুন বলেন, হানিফ হত্যা মামলায় মোট ১০ জনকে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে মামলার ৫ ও ৬ নম্বর আসামিকে গতকাল রাতে গ্রেপ্তার করেছি। ১ নম্বর আসামি সহ বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে। তবে আসামিদের রিমান্ডে আনা হবে কিনা তা উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলতে পারবেন বলে তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ অক্টোবর উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের নূরজাহানপুর গ্রামের মৎস্য ব্যবসায়ী হানিফ মিয়া দুর্বৃত্তদের হাতে নৃশংসভাবে খুন হন।খুনিরা তাকে কুপিয়ে হত্যার পর কচুরিপানা ভর্তি খালে ফেলে রাখে ওই খুনের ঘটনায় নিহতের ছোটবোন শিল্পী আক্তার বাদী হয়ে একই গ্রামের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী দুর্ধর্ষ মনেক মিয়াকে প্রধান আসামি করে ১০ জনের নাম উল্লেখসহ নবীনগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।