দৌলতপুরে জমি-জমার বিরোধের জের ধরে হামলা ভাঙচুর লুটপাট

প্রকাশিত: ১০:৩৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার হোগল বাড়িয়া ইউনিয়নের কায়ামারি গ্রামে জমি-জমার বিরোধের জের ধরে মরহুম মোশারফ হোসেনের স্ত্রী মর্জিনা খাতুনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

গত ১৬ অক্টোবর শুক্রবার আনুমানিক রাত ৯ টার সময় এ হামলার ঘটনা ঘটে। মোশারফ হোসেনের স্ত্রী মর্জিনা খাতুন জানান, তার স্বামী ৮ মাস আগে মারা যায়, তার ছেলে সন্তান না থাকায় একমাত্র মেয়েকে সকল জমি-জায়গা রেজিষ্ট্রী করে দেয় পিতা মোশারফ হোসেন, সেই জের ধরে বিবাদী গণ শুক্রবার রাত ৯ টার সময় মর্জিনা খাতুনের বাড়িতে যায় এবং জমি-জমার আজমা চায়, মর্জিনা খাতুন আজমা দিতে না চাইলে, তাকে মারপিট করে ও তার বাড়ি ভাঙচুর করে এবং ঘরের মূল্যবান আসবাবপত্র, নগদ টাকা, ল্যাপটপ, কাগজপত্রের ফাইল ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে যায়।

হামলার সময় মোশারফ হোসেনের স্ত্রী এবং মেয়ে ছাড়া কেউ বাড়িতে ছিলেন না। এ ব্যাপারে মর্জিনা বাদী হয়ে গত ১৭ অক্টোবর দৌলতপুর থানায় প্রধান আসামী ভাসুর সিরাজুল ইসলামসহ ৪ জনকে আসামী করে, একটা এজাহার দায়ের করেছে। মর্জিনা খাতুন অভিযোগ করে বলেন, হামলা কারীরা ১০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার, এবং ঘরে থাকা নগদ ৬০ হাজার টাকা, মূল্যবান আসবাবপত্র লুট করে নিয়ে যায়। এ ছাড়া তারা বাড়ির মালামাল ভাঙচুর করে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেছে। দৌলতপুর থানাধীন ৭নং হোগলবাড়িয়া ইউনিয়ন বিট পুলিশিং কার্যালয়ের সহকারী বিট অফিসার এস.আই. কামরুল ইসলাম জানান বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে, সত্যতা প্রমান হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।