ভোলাবাসীকে  শারদীয় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন  রুবেল চক্রবর্তী।

প্রকাশিত: ১০:২৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৪, ২০২০

বছর শেষে আবার এলো মা দুর্গার আগমনি।প্রতিবছরের ন্যায় এবার ও অনুষ্ঠিত হবে হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মিয় অনুষ্ঠান শারদীয় দুর্গা উৎসব। এবছর মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে থমকে গেছে মানুষের জীবনের হাসি আনন্দ। আশাকরি খুব দ্রুত এই মহামারী থেকে সৃষ্টি কর্তা আমাদেরকে মুক্তি দিবেন। আমাদের সকলকে অতিতের সকল দুঃখ ভুলে নতুন আলোর পথে এগিয়ে যেতে হবে,তাই সকল হিন্দু সম্প্রদায় সহ অন্যান্য সম্প্রদায়ের মানুষকে জানাই শারদীয় শুভেচ্ছা।আমি রুবেল চক্রবর্তী তজুমদ্দিন উপজেলা কলনী দুর্গা মন্দিরের
সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দেশের সকল মানুষ কে জানাই   উপজেলা কলনী দুর্গা মন্দিরে পক্ষ থেকে আরো এক বার শারদীয় শুভেচ্ছা।  হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে দুর্গা হলেন এক জন জনপ্রিয় দেবী।হিন্দুরা তাকে মহা শক্তির একটি উগ্ররুপ মনে করেন।কালিকা পুরানে উল্লেখ আছে যে শরৎ কালে শ্রীরাম চন্দ্র দেবী পার্বতী দুর্গোতিনাশিনী দুর্গা রুপের পুজা করেছিলেন রাবন বধের নিমিত্তে, এজন্য একে অকাল বোধনও বলা হয়ে থাকে। সাধারণত আশ্বিন মাসের শুক্লপক্ষের ষষ্ঠ দিন তথা ষষ্ঠীর থেকে আরম্ভ করে দশমী পযন্ত হয়ে থাকে এই দুর্গোৎসব।এই পাঁচ দিন যথাক্রমে দুর্গা ষষ্ঠী মহাসপ্তমী, মহাষ্টমি,মহা নবমী ও বিজয়া দশমি নামে পরিচিত।