বিএনপি কর্তৃক মহিলা আ’লীগ নেত্রীর জায়গা দখল

প্রকাশিত: ১:২৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

স্টাফ রিপোটার : গাজীপুরের টঙ্গী পূর্ব থানাধীন শিলমুন পশ্চিম পাড়া গাউছিয়া রোডে জোরপূর্বক বেআইনি ভাবে জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভোক্তভোগী হোসেন আলীর স্ত্রী লাভলী বেগম স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, আমার স্বামী হোসেন আলী গংদের পৈত্রিক সম্পত্তি দীর্ঘদিন যাবত শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখল করিয়া আসিতেছে। বিগত কিছুদিন পূর্বে এলাকায় কিছু ভূমিদস্যু দুষ্কৃতিকারী মফিজ উদ্দিন গং এর নেতৃত্বে ইমান আলী, করিম, আফাজ, শামছু আমাদেরকে জমি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য বিভিন্ন পায়তারা করিয়া জমির মালিকানা দাবী করিয়া আসিতেছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করিয়া আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকিয়া কাগজপত্র যাচাই-বাছাইয়ের জন্য ভূমি অফিস টঙ্গী জোন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার বরাবর অভিযোগপত্র দাখিল রহিয়াছে। যাহা নিষ্পত্তির জন্য অপেক্ষমান। এই বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী র‌্যাব-১ এর বরাবর উভয় পক্ষের অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। আইনগত কোন সুষ্ঠু সমাধান ছাড়াই গত ২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার সময় মফিজ উদ্দিন গং এর লোকজন স্থানীয় আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী এক নেতার সহযোগীতায় উক্ত জমিতে জোরপূর্বক অনুপ্রবেশ করে টিনের বেষ্টনী তৈরি করে জমি দখল করে। বর্তমানে দখলকৃত জায়গার মধ্যে নির্মাণ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। এ বিষয়ে মফিজ উদ্দিন গং এর কাছে ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আপনারা র‌্যাব অফিস, ভূমি অফিস এবং থানায় গিয়ে জানেন। এ বিষয়ে সাংবাদিকরা তার সাক্ষাতকার নিতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের উপর চড়াও হয়। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী পরিবারের দাবী আমাদের সম্পত্তি জোরপূর্বক বেদখল করায় আমরা অত্যন্ত ভয় ও আতঙ্কে আছি। যে কোন সময় মফিজল গংদের দ্বারা আমাদের বড় ধরনের ক্ষতিসাধন হতে পারে। এলাকার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, আমরা জানি দীর্ঘদিন ধরে হোসেন আলী গংরা ভোগদখল করিয়া আসিতেছে। গত বৃহস্পতিবার কিছু দুষ্কৃতিকারী জোরপূর্বক জমিটি দখলে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে গাজীপুর জেলা আইনজীবী রফিকুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, দেওয়ানী মোকদ্দমা ও আদালতের নির্দেশ ছাড়া কোন ভূমি জোরপূর্ব দখল ফৌজদারী দন্ডবিধি আইনে অপরাধের শামিল