গননেতা সুজনভাইয়ের অবদানে গনপরিবহনে চট্টলবাসি পেল বিআরটিসির ২২টি নতুন বাস।

প্রকাশিত: ১২:৩৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২০

মোঃ আল আমিন হোসেন ষ্টাফ রিপোর্টারঃ
চট্টগ্রামের তিন রোডে নামবে বিআরটিসি’র নতুন ২২টি বাস। ভাটিয়ারী-ডিটি রোড-নিউমার্কেট। ফতেয়াবাদ-টাইগারপাস-নিউমার্কেট।কালুরঘাট-বদ্দারহাট-আগ্রাবাদ-কাঠঘর।

নগরের গনপরিবহনে জনজীবনের সংকট তুলে ধরে গুরুত্বপূর্ণ তিনটি রোডে বিআরটিসি’র বাস সার্ভিস চালুর অনুরোধ জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও বিআরটিসি’র পরিচালকের লিখিত চিঠি দিয়েছিলেন (চসিক) প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন।চট্টগ্রামে কর্মজীবী মানুষের গনপরিবহনে ভোগান্তির যেন শেষ নেই। গণপরিবহনে যাত্রীদের ভোগান্তির লাগবে এর আগে আগষ্টের শেষ সপ্তাহে (চসিক)প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন নগরবাসীর দুর্ভোগ লাগবে বিআরটিসির নতুন চালুর দাবি জানিয়ে আসছিলেন।এছাড়াও তিনি মুক্তচিন্তা-চেতনায় নিচ্ছেন নগরবান্ধব নানান প্রসংসিত উদ্যোগ।তেমনি একটি উদাহরণ,চট্টগ্রাম নগরের বিভিন্ন রোডে বিআরটিসি’র নতুন বাস সার্ভিস দ্রুত প্রয়োজন ও চালুর দাবি জানিয়েছিলেন বজ্রদ্বীপ্ত প্রতিবাদে মাধ্যমে।পুরণ হয়েছে নগর প্রশাসকের দাবি চালু হচ্ছে নতুন ২২টি গাড়ি। এসব বাস চলবে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ তিনটি রোডে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন,(চসিক) প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন। তিনি বলেন চট্টগ্রাম নগরীর তিনটি রোডে বিআরটিসির নতুন বাস চালু করতে আমি সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও বিআরটিসির পরিচালকে চিঠি দিয়েছিলাম যার ফলশ্রুতিতে (৮সেপ্টেম্বর) আমাদের জন্য ২২টি বাস বরাদ্দ হয়। বরাদ্দকৃত গাড়িগুলো আনার জন্যে আজ লোকজন ঢাকায় যাবে। এতে কর্মজীবী নগরবাসীর দুর্ভোগ অনেকটা কমবে বলে আমি আশাবাদি।
তাই নগর প্রশাসকের অবদান প্রসংসায় বলতে চাই।
নগর প্রশাসক সুজন ভাই,
নগরীর পিতা তাঁকেই চাই।
দুর্নীতি দমনে,কর্মকাজের কারণনে বাঙালির ইতিহাসে রবে স্মরণে।
দেশের অর্থনৈতিক উৎসের হৃদপিণ্ড বন্দরনগরী চট্টগ্রাম।
চট্টগ্রামের গনমানুষের হৃদপিন্ডে ঠাঁই,
সবার মূখে প্রিয় সুজন ভাই।
কর্মগতির উদ্যোগে
আলোচিত সবদিকে।
নগরবাসীর ব‍্যথায়,বজ্রকন্ঠে বাজে সুজনের কথায়।
জননেতা,নগরপিতা সুজন,কেড়ে নিল সবার মন।
নগরবাসীর সেবা করছে দিন রাত্রি-দিবা।
আওয়াজ উঠেছে সাবার মুখেমুখে,
নগরবাসী চাইলে,যেন পায় সুখে-দুঃখে।মুক্তচিন্তার হাঁসিফুঠোক সবার মুখেমুখে।

মোঃ আল আমিন হোসেন
চট্টগ্রাম জেলা
০১৯০৪৩১২০৬৭