পটিয়ায় স্ত্রী হাতের আঙুল বিছিন্ন করে দিয়েছে স্বামী সহ দেবরগণ 

প্রকাশিত: ১০:৫২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২০

পটিয়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ-

চট্টগ্রামে পটিয়া উপজেলার ছনহরা ইউনিয়ন আকবর সিকদার বাড়িতে স্বামী আবদুস সালামসহ   দেবর মিলে জাহানারা (৫১) নামে এক মহিলার যৌতুকের ১ লাখ টাকা না দেওয়া জের ধরে জাহানারা হাতের আঙুল কুপিয়ে  বিছিন্ন

 

করে দিয়েছে মর্মে অভিযোগ পাওয়া গেছে । এঘটনায় জাহানারা সুস্থ হয়ে অতিরিক্ত জেলা হাকিম আদালত চট্টগ্রাম (পটিয়া) বাদী হয়ে আবদুস সালাম, ছয়দুল হক, আবদুল করিম, রাশেদ, মোরশেদ, আয়শা খাতুন,নুরুল আলম, আক্তার কামাল,সামশুল আলম সহ ১০ জনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি কার্যবিধি আইনে ৯৮ ধারা মতে গত ২২ মার্চ মামলা নং ৬৫০/২০ ইং দায়ের করে। মামলার এজাহার সুএে জানাযায়, আবদস সালাম ও তার ভাই আবদুল করিম সহ জাহানারা বাপের বাড়ি থেকে এক লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। এতে জাহানারা তা অপারগতা প্রকাশ করিলে এ হামলার শিকার হয়। এ ছাড়াও উক্ত বিষয়ে ১৯/০৩/২০ ইং নারী শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনালের নং( ৩) ১ ও ৪,৭ নং বিবাদীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে আবদুল করিমকে পটিয়া থানার পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। বর্তমানে সে জেল হাহাজতে রয়েছে। উক্ত নালিশী অভিযোগে বিবাদীগণ পরস্পর য়োগসাজসে মামলার বাদীপক্ষর ছেলে বেলাল সিএনজি গাড়ি আটকিয়ে থানার মোড় এলাকায় আবদুস সালামের নির্দেশে আবদুল করিম গৃহ নির্মাণ করার জন্য এক লাখ টাকা নগদ  দাবি করে। উক্ত টাকা দিতে বেলাল অপারগতা প্রকাশ করলে মারধর করে এবং  টাকা দিতে না পারলে তাহার চেক বই নিয়ে একটি খালি চেকে স্বাক্ষর নেয়।স্বাক্ষর না মিলানোর কারণে আরও একটি খালি চেকে ২ টি করে স্বাক্ষর নেয়। একটি খালি চেক প্রার্থীকের রেখে দেয়।রেখে দেওয়া চেক নং MCF-8405978।হিসাব নং ২০৫০১৬৩০২০৪৩১১০০৭ ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ পটিয়া শাখা। য়েহেতু প্রতিপক্ষগণ পরস্পরের যোগসাজশে হয়েছে উক্ত খালি   চেকের  প্রার্থীকের স্বাক্ষরযুক্ত চেক দ্বারাই অপুরনীয় ক্ষতি করতে পারে আশংকায় এন. আই.এ্যাক্টের মিথ্যা মামলা মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করতে পারে বলে বাদী মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন।  উক্ত চেক উদ্ধার করার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন জাহানারা বেগম।

সেলিম চৌধুরী

পটিয়া প্রতিনিধি

পটিয়া চট্টগ্রাম

০১৮১৯৩৪৯৪৪২