চট্টগ্রামের  বায়েজিদে ভুয়া ডিবি পুলিশ পরিচয়ে জায়গা দখল ও চাঁদাবাজির অভিযোগ

প্রকাশিত: ৩:০৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০২০

সেলিম চৌধুরী স্টাফ রিপোর্টারঃ-

চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে একটি ভূমি দস্যুচক্র কখনো ডিবি পুলিশ, কখনো সেনা বাহিনী, কখনো আনসার সদস্য, কখনো র‌্যাব পরিচয় দিয়ে গরীব অসহায় মানুষের জায়গা দখল ও চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া গেছে। চক্রটির প্রধান দেশের বাইর থেকে অনলাইনের মাধ্যমে সব কিছু নিয়ন্ত্রন করে থাকেন বলে স্থানীয়রা জানান।

এই সব নিয়ন্ত্রন করেন কাজী মহিউদ্দীন নামের এক ব্যক্তি সে দেশের বাইরে থেকে এসব নিয়ন্ত্রন করে থাকেন। দাবিকৃত চাঁদা পেলে তারা মানুষের অবস্থা বুঝে জায়গাটি তারা কিনে নিয়েছে বলেও দাবি করে থাকেন। এলাকায় কারো জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধ ও আদালতে মামলা থাকলে টাকার বিনিময়ে এক পক্ষকে জায়গা দখলে দেয়া। কারো দখলে থাকলে উচ্ছেদ করা, টাকার বিনিময়ে যে কারো বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলার বাদী হওয়া, মামলার স্বাক্ষী হওয়া সব কিছু তারা করে থাকেন বলে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানাগেছে। সম্প্রতি নগরীর বায়েজিদ থানাধিন পাঁচলাইশ হাজী পাড়ার সাবেক ছাত্র নেতা ও হরযত বারেক শাহ (রাঃ) এর আওলাদ নাজিম উদ্দীন হিরু”র বাড়ি ঘর অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দখল করতে যাশ ভূমিদস্যু ও ভুয়া ডিবি পুলিশের একটি দল। বিষয়টি স্থানীয় থানাকে অভিহিত করার পর ভুয়া ডিবি পুলিশ পরিচয়ে দলটি দ্রুত পালিয়ে যায়। ভুয়া ডিবি পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি ও জায়গা দখলের অভিযোগ রয়েছে মোহাম্মদ এনাম, কাজী মহিউদ্দীন, মামুনুর রশীদ মামুন প্রকাশ ভাগিনা মামুন, মোহাম্মদ মনি, লম্ববা তপুসহ কয়েক জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে নগরীর বায়েজিদ এলাকার নাজিম উদ্দীর হিরু জানান, বিদেশ থেকে কাজী মহিউদ্দীন নামের এক ব্যক্তি অনলাইনে নাম্বারে বিভিন্ন আমি ও আমার ছোট ভাই রানার কাছ থেকে চাঁদা দাবি করে আসছে। আমার চাঁদা না দিলে নাকি আমার বাড়ি ঘর দখলে নিবে। আমার সাথে নাকি এলাকার কয়েকজনকে যোগাযোগ করবে তাদেরকে দাবিকৃত চাঁদার টাকা দিয়ে দিতে হবে। এটা বলার কিছুদিন পর আমার ঘরে নাকি পুলিশ দিয়ে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসিয়ে দেয়াসহ বিভিন্নভাবে ভয় দেখান তারা এর আগেও আমার ঘর বাড়ি পুলিশ সেজে দখল করতে আসলে তারা ভুয়া পুলিশ জানার পর পালিয়ে যায়। বিষয়টি  বায়েজিদ থানার অফিসার ইনচার্জ”কেও জানানো হয়েছে। এ বিষয়ে বায়েজিদ থানার অফিসার ইনচার্জ প্রিটন সরকার জানান, অপরাধী বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ পরিচয় দিয়ে মাদক ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন এলাকায় চাঁদাবাজি করার কথা আমরা শুনেছি। এলাকায় ভুয়া পুলিশের একটি চক্র থাকার বিষয়টি তিনি বিভিন্ন জন থেকে শুনেছেন বলে জানান। বিষয়টি উর্ধতন পুলিশ প্রশাসন এ চক্রটির বিরুদ্ধে ব্যাবস্তা নেওয়ার দাবি জানান এলাকার লোকজন।

সেলিম চৌধুরী

পটিয়া চট্টগ্রাম

০১৮১৯৩৪৯৪৪২