স্বাধীনতা বিরোধী মীরজাফরদের চির বিদায় করতে হবে ডেপুটি স্পীকার 

প্রকাশিত: ৯:৫৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৪, ২০২০

মোঃ সাহাবুল ইসলাম সাঘাটা উপজেলা প্রতিনিধিঃ  

স্বাধীনতার পক্ষের শক্তিকে নিশ্চিহ্ন করার জন্য একটি কু-চক্রি মহল জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে ১৫ই আগষ্ট বঙ্গবন্ধুর স্ব-পরিবারকে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। এই কুচক্রি মহলই ২১শে আগষ্ট সু-পরিকল্পিতভাবে গ্রেনেড হামলায় শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চেয়েছিল। স্বাধীনতা বিরোধী এই মীরজাফরদের দেশ থেকে উৎখাত করে দেশকে কলংক মুক্ত করতে হবে।

আজ সোমবার গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার উল্যা ভরতখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ।

 

সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ ও অংগসংগঠনের উদ্যোগে শেখ মুজিবুর রহমান সহ ১৫ই আগষ্টে নিহত ও বিভীষিকাময় ২১শে আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে এক বিশাল স্মরণ সভায় প্রধান

 

প্রধান অতিথির হিসেবে বক্তব্যে রাখেন উত্তর জনপদের বীরমুক্তিযোদ্ধা এ্যাড. ফজলে রাব্বী মিয়া এম.পি

মাননীয় ডেপুটি স্পিকার বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ

 

ডেপুটি স্পিকার বলেন আগষ্ট মাস জাতীয় শোকের মাস, এই শোককে শক্তিতে রুপান্তরিত করে সবাইকে এগিয়ে যাওয়ার জন্য তিনি আহ্বান জানান।

ভারতখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি জাফরুল ইসলাম জুয়েলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণ সভায়

 

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, পলাশবাড়ী-সাদুল্যাপুর আসনের এম.পি ও কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি,

 

গাইবান্ধা জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ফরহাদ আব্দুল্লাহ হারুন বাবলু,

 

জেলা যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক মন্ডল, রঞ্জিত বকশি সূর্য, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি লুদমিলা পারভীন ছন্দা

গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার সম্মানিত মেয়র আতাউর রহমান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সাঘাটা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির, ফুলছড়ি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান,

প্রচার সম্পাদক হাফিজুর রহমান

সাঘাটা উপজেলা যুবলীগ সভাপতি হারুন-অর-রশিদ হিরু, সাধারণ সম্পাদক নাছিরুল আলম স্বপন, ফুলছড়ি উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক রোকন মিয়া, গাইবান্ধা সরকারী কলেজের সাবেক প্রো-ভিপি মিনাল কান্তি, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আসিফ সহ সকল ইউনিয়নের সভাপতি সেক্রেটারি উপস্থিত ছিলেন প্রমুখ।